Home First post এই বাজেট ভবিষ্যতের দিশারী এবং বিকাশমূলক একটা বাজেট: মুখ্যমন্ত্রী

এই বাজেট ভবিষ্যতের দিশারী এবং বিকাশমূলক একটা বাজেট: মুখ্যমন্ত্রী

বিধানসভায় ২৭৮০৪.৬৭ কোটি টাকার বাজেট পেশ করলেন অর্থমন্ত্রী

by sokalsandhya
0 comment

আগরতলা : রাজ্য বিধানসভায় অর্থমন্ত্রী প্রনজিত সিংহ রায় যে বাজেট পেশ করেছেন সেটা ভবিষ্যতের দিশারী এবং বিকাশমূলক একটা বাজেট। সমাজের সকল অংশের মানুষের কথা ভেবে এই বাজেট পেশ করা হয়েছে। মহিলা থেকে শুরু করে শিক্ষার্থী, যুব সম্প্রদায়, তৃতীয় লিঙ্গ, জনজাতি, তপশিলি জাতি, ওবিসি, সংখ্যালঘু, কর্মচারী, পেনশনার সহ সাধারণ জনগণের কল্যাণে এই বাজেট করা হয়েছে। এজন্য অর্থমন্ত্রী প্রনজিত সিংহ রায়কে ধন্যবাদ জানাই।

শুক্রবার ত্রিপুরা বিধানসভায় বাজেট সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে একথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী প্রফেসর ডাঃ মানিক সাহা। সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানান, ২০২৪-২৫ অর্থ বছরের জন্য অর্থমন্ত্রী প্রনজিত সিংহ রায় ২৭৮০৪.৬৭ কোটি টাকার বাজেট পেশ করেছেন। তিনি বলেন, এই বাজেট একটা সত্যিকারের বাজেট। এই বাজেট একটা জনকল্যাণমুখী বাজেট। সকল অংশের মানুষ এতে খুবই উপকৃত হবেন ও মানুষের কল্যাণে আসবে এই বাজেট। মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, এই বাজেট নিয়ে আমি ব্যক্তিগতভাবে খুবই খুশি। অর্থমন্ত্রী যেভাবে বাজেট পেশ করেছেন আশা করছি এই বাজেট পাশ হবে। ত্রিপুরার সর্বাঙ্গীণ উন্নয়নের দিশায় এই বাজেট পেশ হয়েছে। এতে সকলের উপকার হবে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মার্গ দর্শনে রাজ্য সরকার কাজ করছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশিত দিশাতেই এই বাজেট পেশ হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০২২-২৩ অর্থবর্ষে, রাজ্যের জিএসডিপি-র বৃদ্ধি জাতীয়স্তরে ৭.২০ শতাংশের তুলনায় প্রায় ৪.৪৯ শতাংশ ছিল। চলতি বছরে (২০২৩-২৪ অর্থবছরে) রাজ্যের অর্থনীতি প্রায় ৮.৩৭ শতাংশ (জাতীয় পর্যায়ে ৭.৩ শতাংশ বৃদ্ধির বিপরীতে) বৃদ্ধি পাবে বলে অনুমান করা হয়েছে। ২০২৪-২৫ অর্থবর্ষে, জিএসডিপি প্রবৃদ্ধি ৮.৪৭ শতাংশ অনুমান করা হয়েছে। রাজ্যের নিজস্ব রাজস্ব কর ৩ হাজার ৪৪৮ কোটি টাকা অনুমান করা হয়েছে। রাজ্যের নিজস্ব নন-ট্যাক্স রাজস্ব আনুমানিক ৪৭৫ কোটি টাকা ধরা হয়েছে। মূলধনী ব্যয় ৬ হাজার ৬৩৩ কোটি ৮০ লক্ষ টাকা অনুমান করা হয়েছে, যা ২০২৩-২৪ অর্থবছরের সংশোধিত মূল্যের তুলনায় ২৪.২৬ শতাংশ বেশি।

এই বাজেটে কৃষি ও সংশ্লিষ্ট সেক্টরে ১ হাজার ৭২১ কোটি ৯৪ লক্ষ টাকারও বেশি বরাদ্দ করা হয়েছে, যা ২০২৩-২৪ সালের বাজেট বরাদ্দ থেকে ১৯.৮৮ শতাংশ বেশি। শিক্ষা খাতে ২০২৩-২৪ সালের বাজেট বরাদ্দ থেকে ১১.৫৪ শতাংশ বৃদ্ধি সহ ৫ হাজার ৫০৮ কোটি ৬৩ লক্ষ টাকার অধিক বরাদ্দ করা হয়েছে। এর পাশাপাশি স্বাস্থ্য খাতে এবছর বাজেটে ১ হাজার ৭২৬ কোটি ২৩ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। সর্বোপরি এই বাজেট রাজ্যের মানুষের ব্যাপক কল্যাণে কাজে আসবে বলেও জানান মুখ্যমন্ত্রী প্রফেসর ডাঃ মানিক সাহা।

You may also like

Leave a Comment

SOKAL SANDHYA is the Best Newspaper and Magazine 

Edtior's Picks

Latest Articles

Are you sure want to unlock this post?
Unlock left : 0
Are you sure want to cancel subscription?
-
00:00
00:00
Update Required Flash plugin
-
00:00
00:00